সূচী

ইতিহাস তথ্য ও তর্ক

সম্পাদকীয়

ফেব্রুয়ারী ২৩, ২০২১

‘ইতিহাস আড্ডা’ – ইতিহাস চর্চার সরণিতে এক ক্রমবর্ধমান সার্থবাহ     

বিগত প্রায় দুই সহস্রাব্দ যাবৎ ভারতীয় উপমহাদেশে ন্যায় চর্চার একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ ভাষা ও তথ্যের বিনির্মাণ। আশ্চর্যজনকভাবে এই বিনির্মাণ প্রাচীন বা মধ্যযুগে ইতিহাস চর্চায় কখনও প্রযুক্ত হয় নি। স্বল্প ব্যতিক্রমী বিদ্বানদের বাদ দিলে আধুনিক যুগের পূর্বে এই উপমহাদেশে তথ্য ভিত্তিক ইতিহাস রচনার সেরকম কোনও প্রয়াস দেখা যায়নি। যুক্তিসম্মত অনুসন্ধান ও তথ্যের তুলনাত্মক আলোচনার ভিত্তিতে ইতিহাসের পুনর্নির্মাণের পরিবর্তে কল্পিত ইতিহাসের নির্মাণের ধারা আজও এখানে জনমানসকে গভীরভাবে আচ্ছন্ন করে রেখেছে।

এই পরিস্থিতিকে উপলব্ধি করে, ইতিহাসের তথ্য নির্ভর বিশ্লেষণ ও ঐতিহাসিক ঘটনাবলির যুক্তিনির্ভর বিনির্মাণকে সামাজিক মাধ্যমের পাঠকদের কাছে উপস্থাপনের দৃঢ় আকাঙক্ষাকে বাস্তবায়িত করতে ‘ইতিহাস তথ্য ও তর্ক’ গোষ্ঠীর জন্ম জন্মের লগ্ন থেকেই দুই বাংলার ইতিহাস সচেতন লেখকদের অকুণ্ঠ সহযোগিতায় প্রথমে ফেসবুক ও পরবর্তী কালে এই পোর্টালে উচ্ছসিত হচ্ছে এই ইতিহাস ভাবনার কল্লোল। এই স্রোতস্বিনীর প্রবাহ যাতে অক্ষুণ্ণ থাকে তার জন্য সমমরমী লেখকদের স্বাগত জানাতে আমরা নিয়ত প্রস্তুত। 

সাম্প্রতিক অতিমারীর সংকট আধুনিক ইতিহাসের এক নতুন অধ্যায়ের সংযোজন করে চলেছে। এই অধ্যায়ের কুশীলব আর দর্শক দুই ভূমিকাতেই আজ আমাদের অবতীর্ণ হতে হচ্ছে। ‘ইতিহাস আড্ডা’ পোর্টালে সন্নিবদ্ধ  নিবন্ধমালায় এই সন্ধিকালের চিন্তার প্রতিবিম্ব পরিস্ফুট। ‘বিজ্ঞান এবং প্রযুক্তির ইতিহাস’ থেকে ‘প্রাগিতিহাস ও প্রত্নতত্ত্ব’ বা ‘বিবর্তন ও পরিযান’ থেকে ‘ইতিহাসচিন্তা’ – আমাদের পোর্টালের বিষয়বৈচিত্র্যের বর্ণচ্ছটার অন্তরাল উন্মুক্ত করলে বিদগ্ধ পাঠক সন্ধান পাবেন এই দৃষ্টিকোণের প্রতিচ্ছবির।

কিন্তু, আমাদের পথ চলার এতো সবে শুরু, ‘পতন-অভ্যুদয় বন্ধুর পন্থা’ ধরে অনেক চলা এখনও বাকি। যাঁদের কাছে আমরা এখনও অজ্ঞাত, অপরিচিত, তাঁদের কাছে পৌঁছানোর তাগিদ অতি সাম্প্রতিককালে আমাদের প্রেরিত করেছে ইউটিউবে নিজেদের উপস্থিতিকে চিহ্নিত করতে। সামাজিক মাধ্যমের নব নবতর দিগন্ত আমরা স্পর্শ করতে উন্মুখ ইতিহাসের তথ্যনিষ্ঠ আলোচনার সম্ভার নিয়ে, উপনীত হতে চাই আপনাদের মানসলোকে।  

যুক্তিনির্ভর ইতিহাস চর্চা সংস্কৃতি মনস্ক মানব সভ্যতার সম্পদ। সেই অপরিসীম গুরুত্বপূর্ণ ভাণ্ডারে আমাদের প্রতিনিয়ত ক্ষুদ্র সংযোজনের প্রচেষ্টা সমৃদ্ধ হবে সমালোচনা আর দিগদর্শনে। তাই, আপনাদের সবাইকে রইল বস্তুনিষ্ঠ ইতিহাসচর্চার সরণিতে ‘ইতিহাস আড্ডা’র ক্রমবর্ধমান সার্থবাহের সঙ্গে একত্রে চলার সবিনয় আমন্ত্রণ।